আলাজী (নবনীধর বন্দ্যোপাধ্যায়)

জন্ম : ১৯০২ খৃ. তিরোধান : ১৯৭৮ খৃ.

ব্রতচারী আন্দোলনে গুরুজীর চিন্তা-ভাবনার বাস্তব পরিকল্পনার রূপকার। গুরুজী রচিত কথা ও সুরে প্রথম নৃত্য ভঙ্গি সংযোজক। যা সঙ্গীতালির ক্ষেত্রে গুরুজীর নবদিগন্তের সূচক। তখনও ব্রতচারী আন্দোলনের সূত্রপাত হয়নি। নবনীবাবু গুরুজীর অত্যন্ত কাছের মানুষ হয়ে গেছেন। বিভিন্ন লোক-সম্পদ সংগ্রহ, গবেষণা ও প্ররক্ষণে গুরুজীর প্রধান সহকারী। রায়বেঁশে নৃত্যে ঢোলের বোলের ভাষ্যরূপের স্রষ্টা।

ব্রতচারী আন্দোলনের প্রতিষ্ঠার পূর্বে “পল্লী সম্পদ রক্ষা সমিতি” গঠিত হয়। এবং পর পর দু’টি শিবির অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম থেকেই তিনি প্রধান শিক্ষক। গুরুজীরই সৃষ্ট পদ – • “উস্তাদ আউয়াল”। ব্রতচারী আন্দোলন সৃষ্টির পর “উস্তাদ-ই-আলা (প্রধান)” পরে “নায়ক-ই-আলা”, নায়কালা – আলাজী।

গুরুজীর ইচ্ছায় বিদ্যালয়ের শিক্ষকতা কর্মে ইস্তফা দিয়ে আজীবন ব্রতচারী সমিতির স্থায়ী নায়ক হিসাবে ব্রতচারী গ্রামেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ব্রতচারী গ্রামের প্রতিষ্ঠা থেকে ব্রতচারী গ্রামে যুক্ত থেকে গুরুজীর পরিকল্পিত ব্রতচারী গ্রাম গঠনে সক্রিয় অংশগ্রহণকারীদের অন্যতম, ব্রতচারী জগতে চির স্মরণীয় – আলাজী।

Leave a Comment